ঈমানের ভিত্তি

ঈমানের ভিত্তি কোন জিনিসের উপর?

আক্বীদা ও ফেকাহ জানা-অজানা

ঈমানের ভিত্তি কোন জিনিসের উপর?

প্রশ্ন : পূর্ণ মুসলমান হওয়ার জন্য শুধু যবানে কালেমা তাইয়্যিবা পড়লেই যথেষ্ট হবে নাকি সাত কালেমা পড়তে হবে?

যা হোক এর ওপর বাহ্যিক অঙ্গ তথা হাত, পা, দিল দেমাগ, চক্ষু, কর্ণ দ্বারা আমল করতে হবে কি? সাত কালেমার মধ্যে এই সাত কালেমা অর্থাৎ কালেমায়ে তাইয়্যিবা, শাহাদাত, তামজীদ, তাওহীদ রদ্দে কুফর এবং ঈমানে মুফাস্সাল, মুজমাল রয়েছে নাকি অন্য কিছু?

উত্তর : হাদীস শরীফে এসেছে যে, ইসলাম ও ঈমানের ভিত্তি পাঁচটি বিষয়ের ওপর—

১. তাওহীদ ও রিসালাতের সাক্ষ্য প্রদান যা শুধু যবানে পড়ে নিলে যথেষ্ট হবে না বরং অন্তরে এর তাসদীক থাকা জরুরী।

২. নামায কায়েম করা।

৩. যাকাত আদায় করা।

৪. রমযান মাসে রোযা রাখা।

৫. হজ্জ করা।

উপরিউক্ত পাঁচটির মধ্যে যে পরিমাণ মজবুতি হবে সে পরিমাণ ইসলামের বুনিয়াদ কামেল হবে। তা ছাড়া অনেক জিনিস ঈমান পূর্ণ করার জন্য বয়ান করা হয়েছে।

যেমন— المسلمون من سلم المسلمون

ইসলামের নিযাম মানুষের সমস্ত অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ, কান, চক্ষু এবং অন্তর ইত্যাদির জন্য বিধান দিয়েছে। কুরআনে কারীমে আল্লাহ তা’আলা ইরশাদ করেন:

إن السمع والبصر والفؤاد كل أولئك كان عنه مسئولاً

অর্থ: নিশ্চয়ই কান, চোখ এবং অন্তঃকরণ প্রত্যেকেই এগুলোর ব্যাপারে জিজ্ঞাসিত হবে। যদি কারো মধ্যে ত্রুটি থাকে, তাহলে তাকে তা পূর্ণ করার জন্য উদ্বুদ্ধ করা হবে; তার সম্পর্ক ইসলাম থেকে বিচ্ছিন্ন করা হবে না।

সাত কালেমা এবং এসব ছাড়া আয়াত ও বর্ণনায় যা বর্ণিত হয়েছে তা স্বীকারোক্তি হিসেবে এবং ইয়াকীন পোক্তা করার জন্য। যেন সময় সময় তা পুন:পুন আলোচিত হয় এবং এগুলোর তাগাদা ও দাবির ওপর আমল থেকে গাফলতি না হয়।

মাহমূদিয়া ২/২১: মিশকাত ১২,১৫ মুসলিম ১/৩২ বুখারী ১/৬ সূরা ইসরা ৩৬

আরো জানতে ভিজিট করুন আমাদের ওয়েব সাইট রাহে সুন্নাত ব্লগ

আদর্শ সেনানায়ক মহানবী The ideal commander is the Prophet

ঈমানের ভিত্তি
ঈমানের ভিত্তি কোন জিনিসের উপর?

Leave a Reply

Your email address will not be published.