কুরআন হিফজ করার বিশুদ্ধ পদ্ধতি

কুরআন হিফজ করার বিশুদ্ধ পদ্ধতি

কুরআন ও সুন্নাহ সংস্কৃতি
কুরআন হিফজ করার বিশুদ্ধ পদ্ধতি
কুরআন মাজীদ কিভাবে হিফজ করবে?
বিশ্ব বিখ্যাত বিদ্যাপিঠ দারুল উলূম দেওবন্দের কেরাত বিভাগের প্রধান হযরত মাওলানা শাহ আবরারুল হক হারদুঈ রাহিমাহুল্লাহ সাহেবের অন্যতম খলীফা হযরত মাওলানা ক্বারী আবুল হাসান আজমী দামাত বারাকাতুহুম বলেন- বর্তমানে যে কুরআনে কারীম পুস্তিকা আকারে আমাদের সামনে বিদ্যমান তা হযরত উসমান গনী রাযিয়াল্লাহু আনহু- এর তত্তাবধানে সংকলিত। এতে সুরাসমূহকে নির্দিষ্ট করে আসমান থেকে নাযীল হওয়ার তরতীব অনুযায়ী সাজিয়েছেন। সমস্ত সাহাবায়ে কেরাম রাযিয়াল্লাহু আনহু উক্ত তরতীবে উসমানীর উপর ঐক্যমত পোষন করেছেন। যার খেলাফ করা ইজমায়ে সাহাবার বিরুদ্ধাচরণ করার নামান্তর। বর্তমানে কুরআনে কারীমের সুরাসমূহের যে ধারাবাহিকতা রয়েছে তা হলো- সুরা ফাতেহা, সুরা বাক্বারা, সুরা আল-ইমরান ইত্যাদি।
এখন কেউ যদি কোন মুসলিহাতের কারণে উল্লেখিত তরতীবের খেলাফ কুরআনে কারীম মুখস্ত করে তাহলে তা হবে ইজমায়ে সাহাবাকে অমান্য করার অর্ন্তভুক্ত। যা শরীয়ত সম্মত নয়। মুসলিহাতের বাহানা করা তামাশা ছাড়া কিছুই না। কেননা সুরায়ে বাক্বারার আয়াতসমূহ যেমন ধারাবাহিকভাবে বিন্যস্ত, সুরায়ে মূলক ও সুরায়ে নাবার আয়াতসমূহও তেমনিভাবে বিন্যস্ত।
হযরত উসমান রাযিয়াল্লাহু আনহু যেভাবে কুরআনে কারীমকে বিন্যস্ত করে গিয়েছেন ঠিক সেভাবেই হিফজ ও তিলাওয়াত করা উচিত। কেউ যদি নামাযে ধারাবাহিকতার বিপরিত তিলাওয়াত করে তাহলে সেটা কি মাসনূন তরীকার তিলাওয়াত হবে? অবশ্যই না। কতক ফুকাহায়ে কেরাম বলেন- অনেকেই বাচ্চাদের প্রতি লক্ষ্য রেখে নামাযে তিলাওয়াতের জন্য আমপারা থেকে ছোট ছোট সুরাগুলো মুখস্ত করিয়ে থাকেন, সেখানেও তরতীবের দিকে লক্ষ্য করা চাই। সুরা নাস থেকে শুরু না করে, বরং সুরা নাবা থেকে সুরা নাস পর্যন্ত ধারাবাহিকভাবে মুখস্ত করবে। চেষ্টা করা উচিত হিফজ করানোর ক্ষেত্রে তরতীবে উসমানীর খেলাপ যেন না হয়। সকলেই এব্যাপারে একমত যে শরীয়ত হচ্ছে চারটি বিষয়ের সমষ্টি: কুরআন, সুন্নাহ, ইজমা ও কিয়াস। তাই ইজমায়ে সাহাবার খেলাফ কুরআনে কারীম হিফজ করা শরীয়ত সম্মত নয়।
====================================================================
ইসলামীক আর্টিকেল পড়তে  আমাদের ওয়েব সাইট “রাহে সুন্নাত ব্লগ” ভিজিট করুন। কমেন্ট করুন, লাইক দিন এবং দ্বীন প্রচারের স্বার্থে বেশী বেশী শেয়ার করুন। ধন্যবাদ সকল ভিজিটরকে।
কুরআনুল কারিমের কথা প্রবন্ধটি পড়তে ক্লিক করুন
আরো জানতে ভিজিট করুন আমাদের ওয়েব সাইট রাহে সুন্নাত ব্লগ

Leave a Reply

Your email address will not be published.