জাহান্নাম পর্ব ৩ || Rahe Sunnat-রাহে সুন্নাত

ইহকাল-পরকাল রাহে কুরআন

২২. হযরত ইবনে বাশীর রাযি. থেকে বর্ণিত, রাসূল (সা.)-কে বলতে শুনেছি, “আমি তোমাদেরকে জাহান্নামের আগুন থেকে ভয় প্রদর্শন করছি”- কথা গুলো উচ্চস্বরে বলতে থাকলেন। -দারেমী
২৩. হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আমর রাযি. থেকে বর্ণিত, আসমান থেকে কোন গোল পাথর যমীনের দিকে ফেলে দিলে তা একটি রাত শেষ হওয়ার আগেই যমীনে পৌঁছে যাবে। কিন্তু জাহান্নামের কিনার থেকে নিচ দিকে কোন পাথর ছেড়ে দিলে ৪০ বছরেও তা তার তলদেশে পৌঁছতে পারবে না। -তিরমিজী
২৪. হযরত আবু বুরদাহ রাযি. থেকে বর্ণিত, জাহান্নামের হাবহাব নামক গর্তে প্রত্যেক স্বৈরাচারী অহংকারীকে রাখা হবে। -দারেমী
২৫. হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে হারেস রাযি. থেকে বর্ণিত, জাহান্নামের সাপ (যা খোরাসানী উটের মতো বিরাট) একবার দংশন করলে তার বিষ ব্যথা জাহান্নামীরা ৪০ বছর পর্যন্ত অনুভব করবে। -আহমদ
২৬. হযরত হাসান বসরী রহ. থেকে বর্ণিত, কিয়ামতের দিন সূর্য ও চাঁদ দু’টোকে পনীরের আকৃতি করে জাহান্নামে নিক্ষেপ করা হবে। কারণ জিজ্ঞেস করলে আবু হুরায়রা (রা) বলেন, নবী রাসূল (সা.) এর কাছে যা শুনেছি তাই বর্ণনা করলাম। এর অধীক কিছু জানি না। এতে হাসান বাসরী (রহ.) নিরব হয়ে গেলেন। -বায়হাকি
২৭. হযরত আবু হুরায়রা রাযি. থেকে বর্ণিত, হতভাগ্য ব্যক্তি ছাড়া কেউ জাহান্নামে যাবে না। হতভাগ্যের সংজ্ঞায় বলা হলো যে, যে আল্লাহর সন্তষ্টি লাভের জন্য আনুগত্য করে না এবং তার নাফরমানীর কাজ পরিত্যাগ করে না। -ইবেন মাজাহ
২৮. হযরত আনাস রাযি. থেকে বর্ণিত, কুরআন যাদেরকে আটকিয়ে রাখবে তাদের জন্য জাহান্নাম চিরস্থায়ী হয়ে গেছে। তারা ছাড়া জাহান্নামে আর কেউ থাকবেন না। -বুখারী ও মুসলিম
২৯. হযরত আবু সাঈদ খুদরী রাযি. থেকে বর্ণিত, যখন কিয়ামত সংঘঠিত হবে, তখন একজন ঘোষক ঘোষণা দিবে, প্রত্যেক উম্মত (দল) যে যার ইবাদাত (গোলামী) করত সে যেন তার অনুসরণ করে। তখন যারা আল্লাহ ছাড়া মুর্তি প্রতিমার ইবাদাত করত, তাদের একজনও অবশিষ্ট থাকবে না বরং সবাই জাহান্নামের মধ্যে গিয়ে পড়বে। -বুখারী ও মুসলিম
৩০. হযরত আবু সাঈদ খুদরী রাযি. থেকে বর্ণিত, আল্লাহ বলবেন, যার অন্তরে সরিষার দানা পরিমাণ ঈমান আছে তাকে জাহান্নাম থেকে বের করে আনো। তাদেরকে এমন অবস্থায় বের করা হবে যে, তারা (জাহান্নামের আগুনে) পুড়ে কালো কয়লায় পরিণত হয়ে গেছে। -বুখারী ও মুসলিম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *