যুল-কারনাইন (পর্ব -৩) || রাহে সুন্নাত ব্লগ || Rahe Sunnat Blog

Blog (ব্লগ) ইসলাম প্রতিদিন ইসলামী ইতিহাস

The cause of dhol-karnain names?

Historians have mentioned various causes regarding Dhul-Karnain. According to someone, he had two horns on his head, that is why he was called Dhul-Karnain (two horned).

Some people have said that because he was a supporter of both Rome and Persia, he was given such a title.

Someone says that, because he was the only King of the two ends of the sun, east and west and all the space between it, he was named after him.

Imam Chauri RA. Hadrat Ali ibn Abi Taleb Razi From the narration, a person is Hazrat Ali Razi. When asked about Zul-Karnain, he said, Dhul-Karnain is a righteous servant of Allah. Allah advised him. He accepted the advice. He calls his people to Allah. They hit him on a horn. As a result, he died. Allah will give him life. Again he called his people to Allah. Then they hit him on the other horn. He died in this attack. From here he is called dul-karnain. Shu’ba al-Qasim too is Ali Razi. Describe similar to. Abu Tufayf Ali Ali Raazi He said that Dhul-Karnain was not the Prophet, the Messenger or the angels. He is a virtuous person.

যুল-কারনাইন নামকরণের কারণ?

যুল-কারনাইন ব্যাপারে ঐতিহাসিকগণ বিভিন্ন কারণ উল্লেখ করেছেন। কারো মতে তাঁর মাথায় দুইটি শিং-এর মত ছিল এ কারণে তাকে যুল-কারনাইন (দুই শিংওয়ালা) বলা হয়েছে।
কোন কোন আহলে কিতাব বলেছেন, যেহেতু তিনি রোম ও পারস্য এই উভয় সা¤্রাজ্যের স¤্রাট ছিলেন তাই তাকে এরূপ উপাধি দেয়া হয়েছে।
কেউ বলেন, যেহেতু তিনি সূর্য্যরে দুই প্রান্ত পূর্ব ও পশ্চিম এবং এর মধ্যবর্তী সমস্ত জায়গার একচ্ছত্র বাদশাহ ছিলেন, তাই তাকে এই নামে ভুষিত করা হয়েছে।
ইমাম ছাওরী রহ. হযরত আলী ইবনে আবি তালেব রাযি. থেকে বর্ণনা করেন, জনৈক ব্যক্তি হযরত আলী রাযি. কে যুল-কারনাইন সম্পর্কে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, যুল-কারনাইন আল্লাহ তাআলার এক সৎ বান্দা। আল্লাহ তাআলা তাকে উপদেশ দেন। তিনি উপদেশ কবুল করেন। তিনি তার সম্প্রদায়কে আল্লাহ তাআলার দিকে আহ্বান করেন। তারা তাঁর একটি শিং এর উপর আঘাত করে। ফলে তিনি মারা যান। আল্লাহ তাআলা তাকে জীবিত করেন। আবারও তিনি তাঁর সম্প্রদায়কে আল্লাহর দিকে আহ্বান করেন। তখন তারা তার অপর শিং এর উপর আঘাত করে। এ আঘাতেও তিনি মারা যান। এখান থেকে তাকে যুল-কারনাইন বলা হয়ে থাকে। শু‘বা আল-কাসিমও হযরত আলী রাযি. থেকে অনুরূপ বর্ণনা করেছেন। আবুত তুফাইল হযরত আলী রাযি. থেকে বর্ণনা করে বলেন, যুল-কারনাইন নবী, রাসূল বা ফেরেশতা কোনটিই ছিলেন না। তিনি একজন পূণ্যবান ব্যক্তি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *